pexels-tim-mossholder-4727919

দি ওয়ান থিং: নিজের বড় লক্ষ্যের পিছনে প্রতি মুহূর্তে লেগে থাকা

মো. যোবায়ের হাসান
4.5
(4)
Bookmark

No account yet? Register

অসামান্যতে লিখুন

প্রথমেই ‘দি ওয়ান থিং’ বইটির মধ্যে থাকা একটি চমৎকার কথা দিয়ে শুরু করি,

“Until my one thing is done, everything else is a distraction”

কথাটা দ্বারা আসলে বইয়ের মূল বিষয়বস্তু অনেকাংশে পরিষ্কার হয়ে যায়। কিন্তু নিজের সেই “একটি জিনিস” বলতে কী বুঝায়? কীভাবে সেই একটি জিনিস নির্বাচন করব? তা কাজে লাগাব কীভাবে? 

নিজের লক্ষ্য নির্ধারণ করে সেই অনুযায়ী কীভাবে কাজ করবেন তার সুন্দর একটি পথের ব্যাখ্যা দেয়া বেস্টসেলার বই “দি ওয়ান থিং” নিয়ে অসামান্যের পাঠকদের জন্য এই লেখা।

দি ওয়ান থিং বই । চিত্রসূত্র: Flickr

বইটির একদম প্রথম দিকে একটি রাশিয়ান প্রবাদ দিয়ে শুরু করা হয়েছে, 

“If you chase two rabbits…….

…….you will not catch either one.”

একটি রাশিয়ান প্রবাদ

অর্থাৎ একইসাথে দুটি কাজ করার প্রতি নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। 

The One Thing বইয়ের লেখক Gary Keller
লেখক গ্যারি কেলার (Gary Keller)। চিত্রসূত্র: Wikimedia Commons

আপনার “ওয়ান থিং” খুঁজে বের করার জন্য এই প্রশ্নটি করতে পারেন যা বইটির প্রথম অধ্যায়েই দেয়া আছে,

“এই সপ্তাহে কোন একটি কাজ করার মাধ্যমে বাকি সব কাজ সহজ হয়ে যাবে বা অপ্রয়োজনীয় হয়ে যাবে?”

অর্থাৎ আপনি আপনার কাজকে আরও সংকুচিত করে আনছেন। আপনার ফোকাস একই সময়ে একটি নির্দিষ্ট কাজে রাখতে হবে। 

সেখানে আরও একটি বিষয় বলা হয়েছে আর তা হচ্ছে, “অল্প করে শুরু করা”

সেখানে বলা হয়েছে,

“You need to be doing fewer things for more effect instead of doing more things with side effects”

অর্থাৎ যে কাজই করুন না কেন তা করতে হবে নিখুঁতভাবে, একাধিক কাজ ঠিকমত না করার চেয়ে বরং অল্প কাজ ঠিকমত করতে বলা হয়েছে। 

The One thing বইয়ের আরেক লেখক Jay Papasan
আরেক লেখক জে প্যাপাসন (Jay Papasan)। চিত্রসূত্র: Wikimedia Commons

যখনই আপনি কোন সাফল্যের জন্য দৌড় শুরু করবেন, লক্ষ্য রাখবেন সর্বদা বড়,  কিন্তু কাজ শুরু করবেন আত্মবিশ্বাসের সাথে ছোট ছোট করে। 

একটি অসাধারণ বিষয় বইটিতে উল্লেখ করা হয়েছে আর তা হচ্ছে,

সেরা সেরা কোম্পানিরা তাদের একটি বিশেষ পণ্যের (দি ওয়ান থিং) জন্য সকলের কাছে পরিচিত থাকে যা দ্বারা তারা সবচেয়ে বেশি আয় করে থাকে।

এখানেও “দি ওয়ান থিং”!

উদাহরণ হিসেবে বইয়ে দেয়া আছে, গুগলের কথা। গুগলের সেই ‘ওয়ান থিং’ হচ্ছে “সার্চ”। যেটি দ্বারা তারা বিজ্ঞাপন দেয়, আর এটি তাদের আয়ের অন্যতম প্রধান উৎস। 

Search Engine, Search Results, Google, Browser, Search
গুগল ও গুগল সার্চ। চিত্রসূত্র: Pixabay

Apple এর কথা বাদ যাবে কেন? ১৯৯৮ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তারা তাদের বিভিন্ন পণ্যে পরিবর্তন করেছে। যেমন: Macs থেকে iMacs থেকে iTunes থেকে iPods থেকে iPhones!

রস গারবার এর একটি উক্তি হচ্ছে,

“There can only be one most important thing. Many things may be important, but only one can be the most important”

রস গারবার

মেন্টর হিসেবে রাখতে বলা হয়েছে এমন একজনকে যাকে আপনি বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনুসরণ করবেন। আলবার্ট আইনস্টাইনের উদাহরণ দিয়ে বলা হয়েছে তার প্রথম মেন্টর ছিলেন ম্যাক্স তালমুদ। 

সেখানে বলা হয়েছে,

কেউ একা একা সফল হয় না। কেউ না !

মূল অংশসমূহ

বইটির মূল অংশ যদি বলতে হয় তাহলে হচ্ছে ৩টি। যথা: 

  • প্রথম অংশ : The lies (মিথ্যাসমূহ)
  • দ্বিতীয় অংশ : The truth (সত্যটি) 
  • তৃতীয় অংশ : Extraordinary results (অসাধারণ ফলাফল)

প্রথম অংশে মোট ৬টি মিথ্যা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

সব জিনিস সমানভাবে গুরুত্ব বহন করে 

এখানে লেখক জোহান উলফগ্যাং এর একটি মজাদার উক্তি তুলে ধরেছেন,

Things which matter most never be at the mercy of things which matter least

লেখক লিখেছেন, “Equality is lie”। যখন সব কাজকেই সমান গুরুত্বপূর্ণ মনে হয় তখন হয়ত নিজের সক্রিয়তা, নিজের ব্যস্ততা দেখে মনে হয় অনেক কিছু করে ফেলেছি, সফলতার অনেক নিকটে। কিন্তু মনে রাখতে হবে সফলতা ব্যাপারটি প্রোডাক্টিভিটির সাথে অনেকাংশে জড়িত। 

আপনি হয়ত অনেক কাজ করলেন কিন্তু সেই কাজের ফলাফল নিয়েও আপনাকে ভাবতে হবে। কেবল কাজের পর কাজ করে যাওয়াটাই লক্ষ্য হতে পারে না। এতে আপনি হয়ত অনেক কাজ করতে পারবেন কিন্তু দিন শেষে আপনি নিজেকে কতটুকু সফল হিসেবে দেখলেন সেটিও কিন্তু মাথায় রাখতে হবে। 

হেনরি ডেভিড থ্রোউ এর একটি উক্তি হচ্ছে,

ব্যস্ত হওয়া মানেই সব না, পিঁপড়াও ব্যস্ত থাকে। প্রশ্ন হচ্ছে কেন আমরা ব্যস্ত?

আপনার কাজগুলোর মধ্যে বের করে ফেলতে হবে কোনটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ আর কোনটি কম। সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। 

মাল্টিটাস্কিং 

মাল্টিটাস্কিং দ্বারা আপনার হয়ত মনে হবে আপনি এক সাথে অনেকগুলো কাজ করে ফেলতে পারছেন। কিন্তু আসলেই কি তাই?

“Steve Uzzell”এর একটি উক্তি হচ্ছে, 

“Multitasking is merely the opportunity to screw up more than one thing at a time”

Steve Uzzell

আগে এই শব্দটি ব্যবহার করা হত কম্পিউটারের ক্ষেত্রে। কিন্তু বর্তমানে মানুষের মধ্যেও এর ব্যাপক প্রচলন হয়েছে। 

স্বাভাবিকভাবে মানুষ একাধিক জিনিসে একসাথে ফোকাস করতে পারে না। তাই আপনি হয়ত ভাবছেন আপনি একসাথে অনেকগুলো কাজ করতে পারেন। কিন্তু ভেবে দেখবেন আপনার মনোযোগ কি সব কাজে সমানভাবে থাকে?

একটি সুশৃঙ্খল জীবন

সম্পূর্ণরুপে সুশৃঙ্খল জীবনযাপন করা কোন সহজ কাজ নয়, বিভিন্ন বাধা আসবে এটাই স্বাভাবিক।

বইয়ে বলা হয়েছে,

সাফল্য হচ্ছে সঠিক জিনিসটি করা, সব জিনিস সঠিকভাবে করা নয়”।

Typewriter, Book, Notes, Paper, Writing, Write, Antique
সুশৃঙ্খল জীবন । চিত্রসূত্র: Pixabay

আপনাকে সঠিক “অভ্যাসটি” খুঁজে নিতে হবে, এরপর সেই অভ্যাসটি আপনার মাঝে তৈরি করার জন্য আপনাকে কাজ করতে হবে। আপনাকে সব কাজ সঠিকভাবে করতে হবে এই ভেবে আপনি শুরু করলেন কিন্তু না পেরে ভাবলেন আপনার দ্বারা সম্ভব নয় এবং হাল ছেড়ে দিলেন এটি যেন না হয়। এখন ভাবতে পারেন প্রথমে লিখছিলাম সব কাজ নিখুঁতভাবে করতে আর এখানে লিখছি যে সব জিনিস সঠিকভাবে করা না! আসলে আপনাকে তো অবশ্যই চেষ্টা করতে হবে নিখুঁতভাবে করার। কিন্তু তাই বলে যেন আপনি সব কিছু ঠিকমত করতে না পেরে ভেঙে না পড়েন।

ইচ্ছে করলেই ইচ্ছেশক্তি পাওয়া সম্ভব

বইয়ে উল্লেখ করা আছে, ইচ্ছেশক্তি হচ্ছে মাংশপেশীর মত কাজ করার পর বিশ্রাম দিতে হয়। ইচ্ছেশক্তি আসলেও অসাধারণ ক্ষমতা কিন্তু মাঝে মাঝেই রিচার্জ করার প্রয়োজন। অর্থাৎ কেবল চাইলেই আপনি আপনার ইচ্ছেশক্তি তৈরি করতে পারেন না। নিজের ইচ্ছেশক্তিকে তাই ঠিকমত সঠিক জায়গায় কাজে লাগাতে হবে, আর সে জন্য আপনাকে নির্বাচন করে নিতে হবে কোন কাজে আপনি বেশি মনোযোগ দিবেন অর্থাৎ কোন কাজটি আপনার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

একটি ভারসাম্যপূর্ণ জীবন 

Keith H. Hammonds এর একটি উক্তি দিলেই আশা করি বিষয়টি কিছুটা পরিষ্কার হবে। 

“The truth is, balance is bunk. It is an unattainable pipe dream….The quest for balance between work & life, as we’ve come to think of it, isn’t just a losing proportion; it’s a hurtful, destructive one.”

Keith H. Hammonds

বড় হচ্ছে খারাপ 

এটি হচ্ছে আরেকটি মিথ্যা। এটির মূল কথা হচ্ছে আপনি যতটা সম্ভব নিজের লক্ষ্য নিয়ে বড় কিছু ভাবার চেষ্টা করবেন। একটি উদাহরণ দিয়ে বোঝানো যাক,

যখন বিখ্যাত আইরিশ উদ্যোক্তা আর্থার গিনেস নিজের প্রথম ভাঁটিখানা সেট করছিলেন তখন তিনি ৯০০০ বছরের জন্য একটি লিজ সই করেছিলেন!!!

Skyscraper, Architecture, City, Sky, New York, Building
নিজের লক্ষ্যকে রাখতে হবে আকাশচুম্বী। চিত্রসূত্র: PIxabay

এবার বইয়ে উল্লেখ করা ৩টি সত্যের সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হল। 

এর প্রথমটিই হচ্ছে, “The Focusing Qs.”। আর সেই প্রশ্নটি হচ্ছে, “কোন একটি জিনিস আমি করতে পারি, যেটি করার মাধ্যমে বাকি সব কাজ সহজ হয়ে যাবে বা অপ্রয়োজনীয় হয়ে যাবে?”

Lens, Camera Lens, Focus, Focusing, Hand Holding Lens
নিজের ফোকাস তথা মনযোগকে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় ঠিক করে নিতে হবে । চিত্রসূত্র: PIxabay

এর পরের অংশ হচ্ছে, “The Success Habit”। অর্থাৎ আপনাকে কিছু অসাধারণ অভ্যাস গঠন এর চেষ্টা করতে হবে। 

এর পরেই আছে, “The Path To Great Answers”। প্রশ্ন তো করলেন এখন একটি অসাধারণ উত্তর পেতে হবে সেই প্রশ্নের। আর তা নিয়েই এই অংশ। 

এরপর আসে বইয়ের তৃতীয় অংশ। আর সেখানে কিছু দিক-নির্দেশনা দেয়া আছে। যেমন: 

  • উদ্দেশ্যের সাথে বাঁচুন
  • কাজের অগ্রাধিকারের সাথে বাঁচুন
  • প্রোডাক্টিভিটির সাথে বাঁচুন

এর পরে আছে তিনটি প্রতিশ্রুতি। আর পরের অংশ অনেক অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কেননা আপনি না হয় আপনার কাজ করলেন কিন্তু কিছু চোর কিন্তু থাকবে আপনার বাঁধা হিসেবে!!!

লেখক তাই সেখানে চারটি চোরের কথা উল্লেখ করেছেন। আর সেগুলো হচ্ছে:

১। “না” বলতে না পারা

২। বিশৃঙ্খলতার ভয়

৩। দুর্বল স্বাস্থ্যাভ্যাস

৪। আপনার পরিবেশ আপনার লক্ষ্যের পক্ষে না

বইটি কেন পড়বেন?

বইটি আপনাকে শেখাবে কীভাবে আপনি একটি লম্বা লক্ষ্য ঠিক করে প্রতিদিন তার পিছনে লেগে থাকতে পারেন। প্রতি মুহূর্তে আপনি কীভাবে আপনার লক্ষ্যের জন্য কাজ করবেন। অর্থাৎ আপনার লক্ষ্যকে প্রতিমুহূর্তে ভাগ করে নেয়ার পদ্ধতি শিখতে অসাধারণ এই বইটি পড়ে দেখতে পারেন। 

Bench, Grass, Man, Person, Reading, Alone
চিন্তাশীল পাঠকরা হয়ত বইটি ভালোভাবেই উপভোগ করবেন । চিত্রসূত্র: Pixabay


বই : The One Thing

লেখক : Gary Keller, Jay Papasan

মূল ভাষা : ইংরেজি

প্রকাশনা : John Murrey (Publishers)

প্রকাশকাল : ২০১৩ ইং

আপনার অনুভূতি জানান

Follow us on social media!

আর্টিকেলটি শেয়ার করতে:
2 Thoughts on দি ওয়ান থিং: নিজের বড় লক্ষ্যের পিছনে প্রতি মুহূর্তে লেগে থাকা
    Md Tanvir Islam Sowad
    31 Aug 2020
    10:04pm

    মাশাল্লাহ অনেক সুন্দর লিখেছেন ভাই।

    1
    0
      মো. যোবায়ের হাসান
      27 Sep 2020
      6:49pm

      আপনাকে অসংখ্যা ধন্যবাদ, জাযাকাল্লাহ। 😍

      1
      0

কমেন্ট করুন


সম্পর্কিত নিবন্ধসমূহ:

error: Content is protected !!