রাইজ রোর রিভোল্ট (ফিচার)

আরআরআর: ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে অভূতপূর্ব পরিবর্তন

4.3
(6)
Bookmark

No account yet? Register

বর্তমানে চলচ্চিত্র জগতে ভারত বেশ শক্ত অবস্থানে দাঁড়িয়ে রয়েছে এবং আধিপত্য বিস্তার করে যাচ্ছে। দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্রও সাথে সাথে আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। বাহুবলি, কেজিএফের পাশাপাশি এবার আরেকটি দেশ কাঁপানো চলচ্চিত্র আসতে চলেছে আগামী বছর। আর সেই চলচ্চিত্রটি হচ্ছে আরআরআর বা রাইজ রোর রিভল্ট। 

আরআরআর চলচ্চিত্রটি অ্যাকশন ও অ্যাডভেঞ্চার ঘরানার। যেখানে দুইজন ভারতীয় যোদ্ধা এবং তাদের দেশপ্রেম ও বিদ্রোহের ঘটনা উপস্থাপন করা হয়েছে। দুইটি চরিত্রই বাস্তব জীবন থেকে নেয়া হয়েছে। তারা হলেন আল্লুরি সীতারাম রাজু এবং কোমারাম ভীম।

আরআরআর সিনেমার মোশন পোস্টার
চিত্র: আরআরআর সিনেমার মোশন পোস্টার ; চিত্রসূত্র: FilmiBeat

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের দুই সুপারস্টার রাম চরণ ও জুনিয়র এনটিআর। দর্শকদের কাছে তুমুল জনপ্রিয় এই তারকাদ্বয় একসঙ্গে হাজির হচ্ছেন এই চলচ্চিত্রে। নাম আরআরআর বা রুদ্রম রণম রুধিরাম। যেটি নির্মাণ করেছেন ‘বাহুবলি’ খ্যাত স্বনামধন্য পরিচালক এস এস রাজামৌলি।

আল্লুরি সীতারাম রাজুর জন্ম হয় এক ক্ষত্রিয় পরিবারে। ১৮ বছর বয়সেই তিনি সন্ন্যাস ধারণ করেন। ১৮৮২ সালে ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক মাদ্রাজ ফরেস্ট অ্যাক্ট চালু হয়। এই আইনে এলাকার উপজাতিদের তাদের পুরাতন কৃষি পদ্ধতি বদলানোর নির্দেশ দেয়া হয়। এছাড়া উপজাতি কৃষকদের উপর নানাভাবে অন্যায় অত্যাচার হতে থাকে। তখন আল্লুরি সীতারাম রাজু ১৯২২-’২৪ সময়কালে রাম্পা রেবেলিয়নের নেতৃত্ব দেন এবং কয়েকজন ব্রিটিশ পুলিশ অফিসারকে হত্যা করেন। ১৯২৪ সালে তাঁকে ব্রিটিশরা সকলের সামনে মর্মান্তিকভাবে গুলি করে হত্যা করে।

রাম চরণ, আরআরআর সিনেমার একজন অভিনেতা
চিত্র: রাম চরণ ; চিত্রসূত্র: Ragalahari

কুমারাম ভীমের জন্ম হয় তেলেঙ্গানার এক উপজাতি পরিবারে। এই উপজাতি গোষ্ঠীর উপরে নিজামদের প্রচুর করের বোঝা ছিল, যা থেকে নিজামেরা আবার ব্রিটিশরাজকে কর দিত। 

জুনিয়র এনটিআর, আরআরআর চলচ্চিত্রের একজন অভিনেতা
চিত্র: জুনিয়র এনটিআর; চিত্রসূত্র: Behindwoods

মাত্রাতিরিক্ত অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে কুমারান ভীম শিবাজি সেনাদের অধীনে থেকে নিজাম সরকারের বিরুদ্ধে গেরিলা যুদ্ধে যোগ দেন। অতঃপর নিজাম সরকার ব্রিটিশ সরকারের কাছে সাহায্য চায়। এভাবেই কুমারাম ভীম ব্রিটিশদের বিরুদ্ধেও যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন। এককথায় এই দুইজনকে নিয়েই চলচ্চিত্রের মূল ঘটনা।

আরআরআর চলচ্চিত্রের এখন পর্যন্ত মোট দুটি টিজার প্রকাশ করা হয়েছে। এতে কোমারাম ভীম রূপে দেখা দিয়েছেন জুনিয়র এনটিআর। এই রূপে তিনি রীতিমত তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। প্রকাশের পর টিজারটি নিয়ে আলোচনার ঝড় বইছে। চলচ্চিত্রটির ব্যবস্থাপনা ও এতে তারকাদের আত্মনিবেদন কতটা উচ্চ পর্যায়ের, তা টিজারেই প্রতীয়মান।

জুনিয়র এনটিআর, আরআরআর সিনেমার একজন অভিনেতা
চিত্র: জুনিয়র এনটিআর ; চিত্রসূত্র: India TV News

চলতি বছরের মার্চে আল্লুরি সীতারামা রাজু রূপে অভিনয়কারী রাম চরণের জন্মদিন উপলক্ষে সিনেমাটির প্রথম টিজার প্রকাশ করা হয়েছিল। টিজারটি ছিল অসাধারণ এবং তা দর্শক ও চলচ্চিত্রবোদ্ধা উভয়কেই আকর্ষিত করে। এই চলচ্চিত্রের জন্য তিনি যে নিজের শরীরকে পুরো নতুন ছাঁচে গড়ে তুলেছেন, তা টিজার দেখেই বোঝা যাচ্ছে। 

আরআরআর চলচ্চিত্রের মোশন পোস্টারে শুরুতে রাখা হয়েছিল তেলুগু সুপারস্টার রামচরণকে। ‘মগধীরা’ খ্যাত এই অভিনেতার নতুন রূপ চমকে দিচ্ছে সবাইকে। তার অভূতপূর্ব দেহসৌষ্ঠব ও উপস্থাপনা মুগ্ধ করছে দর্শকদের। আর তাই রাম চরণের ভক্তদের আগ্রহ আরও বহুগুণে বাড়িয়ে দিয়েছে পোস্টারটি। 

রাম চরণ এই চলচ্চিত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন।
চিত্র: রাম চরণ ; চিত্রসূত্র: Times of India

উল্লেখ্য, আরআরআর চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে কোমারাম ভীম ও আল্লুরি সীতারামা রাজু নামের দুই বীর যোদ্ধাকে নিয়ে। ৩০০ কোটি রুপির বিশাল বাজেটে নির্মিত হয়েছে এই সিনেমা। এই সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রে আরও আছেন অজয় দেবগন, আলিয়া ভাট, রে স্টেভেনসন ও অ্যালিসন ডুডি প্রমুখ।

আরও পড়ুন: অ্যাভাটার ২: বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেতে চলেছে ২০২২ সালে

জানা গিয়েছে আরআরআর সিনেমা থেকে ডিরেক্টর এস এস রাজামৌলি নিবেন ৩৩ কোটি রুপি। এছাড়াও রাম চরণ পাবেন ৩০ কোটি রুপি এবং জুনিয়র এনটিআর পাবেন ৩০ কোটি রুপি। আর এরই মাধ্যমে এই তারকাদ্বয় নিজের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক হাঁকতে যাচ্ছেন। এছাড়াও চলচ্চিত্রের কিছু দৃশ্যের জন্য ৪৫ কোটি রুপি খরচ করা হয়েছে।

আলিয়া ভাট, আরআরআর চলচ্চিত্রের একজন অভিনেত্রী
চিত্র: আলিয়া ভাট ; চিত্রসূত্র: DNA India

কয়েকমাস আগে গুঞ্জন উঠে, এস এস রাজামৌলির পরবর্তী চলচ্চিত্র রুদ্রম রনম রুধিরাম বা আরআরআর থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন আলিয়া ভাট। তাঁর পরিবর্তে নাকি প্রিয়াঙ্কা চোপড়া আছেন নির্মাতার ভাবনায়। তবে এই গুঞ্জন সত্য নয় বলে জানিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রীর একজন ঘনিষ্ঠ সূত্র পিংকভিলা ডটকমকে বলেন, আলিয়া ভাট আরআরআর চলচ্চিত্রে অভিনয় করবেন। তিনি এজন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এমনকি চরিত্রের জন্য তাকে তেলেগু শিখতে ও বুঝতে হবে, তাই সেরকম ভাষাগত প্রস্তুতিও নিচ্ছেন তিনি। 

করোনার কারণে শুটিং বন্ধ থাকাকালীন নির্মাতারা আলিয়ার সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী শুটিংয়ের তারিখ নির্ধারণ করেছেন। এদিকে এ বিষয়ে নির্মাতা রাজামৌলি এখনও কোনো বক্তব্য দেননি। তবে সিনেমার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক সূত্রে এসব গুঞ্জনের নিন্দা জানানো হয়েছে। আরআরআর চলচ্চিত্রের জন্য আলিয়াকে বেছে নেওয়া হয়েছে এবং তাকে পরিবর্তন করার কোনো চিন্তাই আপাতত নির্মাতাদের মাথায় নেই। অভিনেতা রাম চরণের বিপরীতে অভিনয় করবেন এই অভিনেত্রী। 

অজয় দেবগণ
চিত্র: অজয় দেবগণ ; চিত্রসূত্র: Scroll.in

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন ধরে আরআরআর চলচ্চিত্রের শুটিং বন্ধ ছিল। তবে সেটি আবার পুনরায় শুরু করা হয়েছে।

আরআরআর সিনেমার একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে বলিউড তারকা অজয় দেবগনকে। সেজন্য চলচ্চিত্রটির সেটে হাজির হয়েছেন তিনি। তবে প্রযোজককে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এর জন্য তাকে যেন টাকা দেওয়ার কোনো চেষ্টা করা না হয়। তেলুগু এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই দক্ষিণী চলচ্চিত্রে অভিষেক হচ্ছে অজয়ের। জানা গিয়েছে, এখানে তার বিপরীতে অভিনয় করবেন শ্রিয়া সরন।

রাজামৌলি
চিত্র: রাজামৌলি ; চিত্রসূত্র: Deccan Chronicle

অজয়কে অভিনয়ে রাজি করাতে প্রথমে মোটা অংকের টাকা দিতে চেয়েছিলেন প্রযোজক ডিভিভি ধানাইয়া। অজয় সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলে তার বাজারমূল্য অনুসারে টাকার নতুন অঙ্ক তাকে জানানো হয়। সেটি নিতেও রাজি হননি ৫০ বছর বয়সী এই তারকা। বরং বলে দিয়েছেন, বন্ধুকে ভালোবেসে কাজটি তিনি বিনা পারিশ্রমিকেই করে দেবেন। তার সেই বন্ধুটি আর কেউ নন, স্বয়ং পরিচালক রাজামৌলি।

বাহুবলী: দ্য কনক্লুশনের রেকর্ড ভেঙে অভূতপূর্ব ইতিহাস গড়েছে একই পরিচালকের নির্মিত আরআরআর। আর এরকম রেকর্ড গড়া এসএস রাজামৌলির পক্ষেই সম্ভব। মূলত সর্বকালের ব্লকবাস্টার বাহুবলীর পর অভিনেতা প্রভাস ও পরিচালক এস এস রাজামৌলি উভয়ের জন্যই চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে পড়েছিল, তাদের পরবর্তী কাজটিও ব্লকবাস্টার হবে কিনা। প্রভাস ইতোমধ্যে সাহো সিনেমায় নিজের অ্যাকশনধর্মী চরিত্রে দারুণভাবে বড় পর্দায় ধরা দিয়েছেন। এরপর অপেক্ষা ছিল রাজামৌলির। আর সেই অপেক্ষার প্রহর গুনতে হবে আগামী বছরের পৌষ সংক্রান্তি পর্যন্ত।

আরআরআর সিনেমার মোশন পোস্টার
চিত্র: আরআরআর চলচ্চিত্রের মোশন পোস্টার ; চিত্রসূত্র: Telugu Stop

মুক্তির আগেই নতুন চমক দেখানো শুরু করেছে রাজামৌলির আরআরআর’। তা হলো, প্রেক্ষাগৃহে আসার আগেই ৪০০ কোটি রুপি আয় করে ফেলেছে ৩০০ কোটি বাজেটের এই সিনেমা। আর এর মধ্য দিয়েই বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’র রেকর্ড ভেঙে দিল সিনেমাটি। সিনেমাটি ঘিরে দর্শকদের মধ্যে ইতোমধ্যে দারুণ আগ্রহ ও উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। ভারতীয় সিনেমার বাণিজ্য বিশ্লেষক রমেশ বালা এক টুইট বার্তায় জানান, মুক্তির আগেই দক্ষিণ ভারতসহ বিদেশের বাজার মিলিয়ে ৪০০ কোটি রুপির ব্যবসা করে ফেলেছে আরআরআর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, শুধু তেলেঙ্গানাতেই এই সিনেমার স্বত্ত্ব বিক্রি হয়েছে ২১৫ কোটি রুপিতে, কর্ণাটকে  ৫০ কোটি এবং কেরালায় ১৫ কোটি রুপি। তবে তামিলনাড়ুতে এই সিনেমার স্বত্ত্ব কত টাকায় বিক্রি হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। জানা গিয়েছে, এস এস রাজামৌলির পরিচালিত সিনেমা আরআরআর ২০২১ সালের ৮ই জানুয়ারি মুক্তি পাবে।

প্রচ্ছদ চিত্রসূত্র: Youtube

তথ্যসূত্র:

আপনার অনুভূতি জানান

Follow us on social media!

আর্টিকেলটি শেয়ার করতে:
No Thoughts on আরআরআর: ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে অভূতপূর্ব পরিবর্তন

কমেন্ট করুন


সম্পর্কিত নিবন্ধসমূহ:

error: Content is protected !!